দলবদলের বাজারে বর্তমান সময়ে সর্বাধিক আলোচিত কয়েকজন তারকা ফুটবলার

মৌসুম শেষে চলছে দলবদলের মৌসুম এবং আন্তর্জাতিক বিরতি। এই বিরতিতে ফুটবল ভক্তদের মাতিয়ে রাখতে মাঠে গড়িয়েছে কোপা আমেরিকা। এবং কিছুদিনের মধ্যে শুরু হবে আফ্রিকান নেশন্স কাপের মতো বড় টুর্নামেন্ট। অন্যদিকে, ইউরো ২০২০ এর বাছাইপর্ব তো রয়েছেই। আর এসব টুর্নামেন্টের মাঝে ঘরোয়া লিগের দলগুলো নতুন মৌসুমের জন্য পছন্দের খেলোয়াড় কেনাবেচা করছে। কোনো কোনো দল পছন্দের খেলোয়াড়দের সঙ্গে আগে থেকেই মৌখিক চুক্তি সেরে রেখেছে। এখন শুধুমাত্র আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে তাদের পারফরম্যান্স দেখে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়াটাই বাকি।

Image Source: The Sun

সবকিছুকে পেছনে ফেলে দলবদলের শুরুতেই একাধিক বড় চুক্তি সম্পন্ন করেছে স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ। গত মৌসুমে রোনালদোকে বিক্রি করলেও তার পরিপূরক হিসেবে কোনো প্লেয়ারকে দলে ভেড়ায়নি দলটি। তবে এবারের দলবদলের শুরুতে সার্বিয়ান স্ট্রাইকার লুকা জোভিককে দলে ভিড়িয়ে দলবদলের বাজারকে সরগম করে তোলে রিয়াল।

Image Source: Squawka

একই সপ্তাহে শত মিলিয়ন ইউরো খরচ করে বেলজিয়ান তারকা এডেন হ্যাজার্ডকেও দলে ভেড়ায় দলটি। দলবদলের বাজারে রিয়ালের এমন দৌড়ঝাঁপ দেখে নড়েচড়ে বসেছে অন্য বড় দলগুলো। তারাও খেলোয়াড় কেনাবেচা শুরু করেছে গত কয়কেদিন থেকে। সেই হিসেবে দেখে নেয়া যাক দলবদল মৌসুমে বিভিন্ন দলে যোগ দিতে পারেন এমন কয়েকজন তারকা ফুটবলার সম্পর্কে।

গ্যারেথ বেল

রিয়াল মাদ্রিদ এবং ওয়েলস তারকা গ্যারেথ বেল গত কয়েক মৌসুম ধরে ফর্মহীনতায় ভুগছেন। ২৯ বছর বয়সী এই উইঙ্গার গত মৌসুমে লা লিগায় ২৯ ম্যাচ খেলে ৮ গোল ৩টি অ্যাসিস্ট করেছেন। রোনালদোর বিদায়ে রিয়াল যখন তার উপর পুরোপুরি নির্ভরশীল হয়েছিলো ঠিক তখনি রিয়ালকে হতাশ করেন তিনি। এছাড়াও বাজে পারফরম্যান্সের পাশাপাশি কোচ জিনেদিন জিদানের সঙ্গেও তার সম্পর্ক ভালো নয়।

গ্যারেথ বেল; Image Source: Express Uk

রিয়ালে যোগ দেয়ার পর দীর্ঘ সময় ইনজুরিতে কাটানো এই তারকা এখন জিদানের প্রথম পছন্দের তালিকাতেও নেই। যার কারণে তাকে বিক্রি করতে দল খু্ঁজতে নেমেছে রিয়াল মাদ্রিদ। যদিও গ্যারেথ বেল তার এজেন্টকে রিয়াল না ছাড়ার কথাই জানান। কিন্তু রিয়ালের মতো ক্লাব ভালো দাম পেলে তাকে বিক্রি করবে না তা ভাবাও বোকামি। তাকে দলে পেতে টটেনহামের পাশাপাশি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডও আগ্রহী।

পল পগবা

২০১৪ সালের বিশ্বকাপে সেরা উদীয়মান তারকার পুরস্কার পাওয়ার পর ফুটবল বিশ্বে রাতারাতি তারকা বনে যান ফরাসি মিডফিল্ডার পগবা। ইয়ুথ ক্যারিয়ারে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড যুবদলে খেললেও পরবর্তীতে জুভেন্টাসে যোগ দিয়েছিলেন পগবা। মূলত জুভেন্টাসেই তিনি তার পারফরম্যান্স নৈপুণ্যে নিজেকে সবার সামনে তুলে ধরেন। পরবর্তীতে ২০১৬ সালে ১১০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে আবারো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে ফেরেন পগবা।

পল পগবা; Image Source: Express Uk

তখন থেকে এখন অবধি বহু ঝড়ঝাপটা পেরিয়ে ম্যানইউর মাঝমাঠ একাই আগলে রেখেছেন পগবা। যদিও এবার ম্যানইউর ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা এবং চ্যাম্পিয়ন্স লিগে কোয়ালিফাই করতে না পারায় দল ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। তাকে দলে নিতে আগ্রহী তার সাবেক ক্লাব জুভেন্টাস এবং রিয়াল মাদ্রিদ। যদিও পগবার জন্য নির্ধারিত ১৫০ মিলিয়ন ইউরো ব্যতীত তাকে কোথাও যেতে দেবে না বলে জানিয়েছে ম্যানইউর কর্তারা। এখন দেখার বিষয় এত দাম দিয়ে রিয়াল কিংবা জুভেন্টাস ২৬ বছর বয়সী কোনো মিডফিল্ডার দলে নেয় কিনা।

ক্রিস্টিয়ান অ্যারিকসেন

বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা মিডফিল্ডার ক্রিস্টিয়ান অ্যারিকসেন দীর্ঘদিন যাবত টটেনহামের হয়ে খেলছেন। একজন অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার হিসেবে খেলেও দলের জয় পরাজয়ে পার্থক্য গড়ে দেয়ার মতো সক্ষমতা তার রয়েছে। গত ২০১৮-১৯ মৌসুমটি ছিলো টটেনহামের হয়ে তার ক্যারিয়ারের সেরা মৌসুম। টটেনহাম ইতিহাসে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে কোয়ালিফাই করেছিলো। আর পুরো টুর্নামেন্টে অ্যারিকসেন ছিলেন দলের মাঝমাঠের সেরা পারফর্মার।

ক্রিস্টিয়ান অ্যারিকসেন; Image Source: Express Uk

মৌসুম শেষে একাধিক বড় দল থেকে প্রস্তাব পাওয়ায় নিজেই টটেনহাম ছাড়ার ঘোষনা দিয়েছেন ২৭ বছর বয়সী এই তারকা। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমের মতে রিয়াল মাদ্রিদই হতে যাচ্ছে তার পরবর্তী গন্তব্য। এদিকে তার জন্য ১০০ মিলিয়ন পাউন্ড দাম নির্ধারণ করেছে টটেনহাম কর্তৃপক্ষ। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী মাসের শেষেই তার সঙ্গে রিয়ালের চুক্তি সম্পন্ন হতে পারে।

অ্যান্থনি গ্রিজম্যান

দলবদলের বাজারে গত কয়েক মৌসুম ধরে বেশ আলোচনায় থেকেছেন ফরাসি স্ট্রাইকার অ্যান্থনি গ্রিজম্যান। দীর্ঘদিন ধরে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের হয়ে মৌসুম সেরা পারফরম্যান্সও উপহার দিচ্ছেন তিনি। সেই কারণেই তাকে দলে নিতে মুখিয়ে আছে শীর্ষ ৫ লিগের অনেকগুলো দল। গতবার তো বার্সেলোনা তাকে প্রায় কিনেই নিয়েছিলো। যদিও অজানা কারণে চুক্তিটি মাঝপথে থমকে যায়।

অ্যান্থনি গ্রিজম্যান; Image Source: Marca

অ্যাথলেটিকোর হয়ে সর্বাধিক বেতনভোগী গ্রিজম্যানকে দলে নিতে এবারও মোটা অঙ্কের অর্থ প্রস্তাব করে বার্সেলোনা। মৌসুমের শেষে এই গুঞ্জনটি আরো জোরালোভাবে উপস্থাপন করে কাতালান পত্রিকাগুলো। যদিও অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের প্রেসিডেন্ট সংবাদসম্মেলন করে এই সংবাদকে গুজব বলে উড়িয়ে দেন। সেই সাথে বার্সেলোনার বিরুদ্ধে অবৈধভাবে গ্রিজম্যানকে প্ররোচিত করার অপরাধে মামলা করেন। এদিকে, বার্সার দরজা বন্ধ হলেও স্বদেশী ক্লাব পিএসজি তাকে দলে নিতে নতুন করে প্রস্তাব দিয়েছে। এখন দেখার বিষয় গ্রিজম্যানকে অ্যাথলেটিকো যেতে দেয় কিনা!

জোয়াও ফেলিক্স

বর্তমান সময়ে সর্বাধিক আলোচিত ১৯ বছর বয়সী এই পর্তুগীজ উইঙ্গারকে দলে নিতে আগ্রহী শীর্ষ ৫ লিগের একাধিক দল। গত মৌসুমে অসাধারণ পারফরম্যান্স করায় বড় দলগুলোর নজরে পড়েন তিনি। অন্যদিকে, পর্তুগিজ পত্রিকাগুলোও তার ব্যাপারে ঘটা করে সংবাদ প্রচার করেছিলো। যার কারণে ফেলিক্স এখন দলবদলের বাজারে দামী খেলোয়াড়ে পরিণত হয়েছেন। পর্তুগিজরা তাকে রোনালদোর পর পর্তুগালের ভবিষ্যৎ হিসেবে ভাবছেন।

জোয়াও ফেলিক্স; Image Source: Marca

ফেলিক্স বর্তমানে বেনফিকার হয়ে খেলছেন। গত মৌসুমে পর্তুগীজ লিগে ২৬ ম্যাচ খেলে ১৫ গোল এবং ৭টি অ্যাসিস্ট করেছেন তিনি। ইউরোপা লিগেও করেছেন ৩টি গোল। ১৯ বছর বয়সে এমন অসাধারণ পারফরম্যান্স করা ফেলিক্সকে পেতে আগ্রহী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, টটেনহাম এবং বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের মতো দলগুলো। যদিও বেনফিকা তার জন্য ১২০ মিলিয়ন ইউরো দাম নির্ধারণ করেছে। এদিকে ১৯ বছর বয়সী কিশোরের জন্য কোনো দলই ১০০ মিলিয়ন পর্যন্ত গুনতে রাজি নয়। সেই কারণেই এখন অবধি বলা যাচ্ছে না কোথায় হতে যাচ্ছে ফেলিক্সের পরবর্তী গন্তব্য।

Featured Image Source: AS

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *