মৌসুম শেষে ভক্তদের মাতিয়ে রাখবে যেসকল আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট

গত মাসে শেষ হয়েছে ইউরোপের ঘরোয়া ফুটবল লিগের ২০১৮-১৯ মৌসুমের খেলা। চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের মধ্যদিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে মৌসুমের পর্দা নামে। সেই সাথে শুরু হয় ঘরোয়া লিগের দলগুলোর খেলোয়াড় কেনাবেচা। কারণ প্রতি মৌসুমের শেষে দুই মাস ব্যাপী দলবদল মৌসুম পরিচালিত হয়। যদিও এই সময়টায় বছরব্যাপী ঘরোয়া লিগের ফুটবল উপভোগ করা ভক্তদের উপভোগ করার মতো কিছুই থাকে না।

Image Source: Mmagazine

কারণ দলবদল মৌসুমের সঙ্গে সঙ্গে এই দুই মাসে শুরু হয় আন্তর্জাতিক বিরতি। প্রতিটি খেলোয়াড়ই দীর্ঘ এক বছরের পেশাদার ফুটবলকে দুই মাসের জন্য বিদায় জানিয়ে নিজ দেশের হয়ে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে প্রতিনিধিত্ব করেন। যার ফলে প্রকৃত ফুটবল প্রেমিদের জন্য এই সময়টা আরো উপভোগ্য হয়ে উঠে।

লিভারপুলের শিরোপা উদযাপন; Image Source: Fox Asia

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে থাকা কোটি কোটি ফুটবল ভক্তদের জন্য এবারের আন্তর্জাতিক বিরতিতে অপেক্ষা করছে একাধিক বড় টুর্নামেন্ট। ফুটবলের জয়োধ্বনী এবার ইউরোপে শুরু হয়ে আফ্রিকা এবং লাতিন আমেরিকাতেও পৌঁছে যাবে। ফিফা এবং তার সহযোগী সংস্থাগুলো ভক্তদের মাতিয়ে রাখতে আয়োজন করতে যাচ্ছে কয়েকটি আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট। চলুন দেখে নেয়া যাক ঘরোয়া লিগ ফুটবলের দীর্ঘ বিরতিতে ভক্তদের জন্য কী কী টুর্নামেন্ট অপেক্ষা করছে।

উয়েফা নেশন্স লিগের নক আউট পর্ব

ইউরোপীয় ফুটবলের নতুন টুর্নামেন্ট উয়েফা নেশন্স লিগ গত বছর থেকে শুরু হয়। যদিও গ্রুপ পর্বের ম্যাচগুলো গতবছরই সম্পন্ন হয়েছিলো। এই টুর্নামেন্টে উয়েফার অন্তর্ভুক্ত প্রায় প্রতিটি দলই খেলার সুযোগ পেয়েছে। উয়েফা এই টুর্নামেন্ট থেকে ২০২০ সালে অনুষ্ঠিতব্য ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য দল বাছাই করবে বলেও ঘোষনা দেয়।

Image Source: B/R

চলতি মাসের ৬ তারিখ নেশন্স লিগের প্রথম সেমিফাইনাল ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয়। সেই ম্যাচে সুইজারল্যান্ডকে আতিথ্য দেয় ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল। পোর্তোতে রোনালদোর হ্যাটট্রিকে ৩-১ গোলে জয় পায় স্বাগতিকরা। এই জয়ের সুবাদে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত এই টুর্নামেন্টের ফাইনালে পৌঁছায় দলটি। অন্যদিকে, একদিন পর পর্তুগালেই অনুষ্ঠিত হয় দ্বিতীয় সেমিফাইনাল। ম্যাচটিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে নেদারল্যান্ডস এবং ইংল্যান্ড। ম্যাচটি ১২০ মিনিট অবধি মাঠে গড়ালেও শেষ পর্যন্ত থ্রি লায়ন্সদের ৩-১ গোলে পরাজিত করে ফাইনালে উঠে ডাচরা।

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো; Image Source: B/R

আগামীকাল ৯ জুন পোর্তোতে নেশন্স লিগের ফাইনাল ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। কোপা আমেরিকার পূর্বে এই ফাইনাল ম্যাচের দিকেই তাকিয়ে রয়েছে গোটা ফুটবল বিশ্ব। কারণ বর্তমান ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন পর্তুগালের সামনে আরো একটি আন্তর্জাতিক শিরোপা জয়ের হাতছানি দিচ্ছে। সেই সাথে পর্তুগালের হয়ে মাঠে নামবেন ৩৪ বছর বয়সী ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।

রোনালদো বনাম ভ্যান ডাইক; Image Source: b/r

অন্যদিকে, গত বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করতে না পারা নেদারল্যান্ডস নেশন্স লিগে অসাধারণ পারফরম্যান্স উপহার দিয়ে যাচ্ছে। ভ্যান ডাইক, ডি লিট, ডি ইয়ংদের নিয়ে গড়া শক্তিশালী ডাচরা এই শিরোপার যোগ্য দাবিদার। সেই হিসেবে বলা যায় আন্তর্জাতিক বিরতির এই সময়ে এসে ফুটবল ভক্তরা অসাধারণ একটি ম্যাচর উপভোগ করতে যাচ্ছে।

ইউরো ২০২০ এর বাছাইপর্ব

নেশন্স লিগের গ্রুপপর্বে বাদ পড়া দলগুলো চলমান আন্তর্জাতিক বিরতিতে আবারো মাঠে নামবে। ৭ই জুন থেকে মাঠে গড়াবে ইউরো ২০২০ এর বাছাইপর্বের কয়েকটি ম্যাচ। শুধুমাত্র নেশন্স লিগের দুই ফাইনালিস্ট দল ব্যতীত প্রায় সকল দলই মাঠে নামছে এই কয়েকদিনে।

Image Source: B/R

গত ৭ এবং ৮ জুন মাঠে নেমেছিলো ইতালি, ফ্রান্স, জার্মানি, ক্রোয়েশিয়ার মতো বড় দলগুলো। বিশ্বকাপজয়ী ফ্রান্স তুরস্কের বিপক্ষে ২-০ গোলের ব্যবধানে পরাজিত হলেও বাকি বড় দলগুলো ঠিকই জয়ের দেখা পেয়েছে। কয়েক পর্বের এই বাছাইপর্বের প্রথম পর্ব শেষ হবে চলতি মাসের ১২ তারিখ।

কোপা আমেরিকা ২০১৯

চলতি বছর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের সর্ববৃহৎ ফুটবল যুদ্ধ খ্যাত কোপা আমেরিকা ২০১৯। টুর্নামেন্টের ৪৬তম আসরটির আয়োজক দেশ ব্রাজিল। এবারের টুর্নামেন্টকে ঘিরে উত্তর আমেরিকা অঞ্চলের মানুষের মাঝে উত্তেজনার শেষ নেই। কারণ দীর্ঘ ৩ বছর পর মাঠে গড়াবে তাদের স্বপ্নের টুর্নামেন্টটি। বিশ্বময় ছড়িয়ে থাকা ফুটবল ভক্তদের মাঝে একটি বৃহৎ অংশ আটলান্টিকের ওপাড়ের উত্তর আমেরিকায় বাস করে। যার কারণে গোটা বিশ্বের মানুষ মোটামুটিভাবে লাতিনের ফুটবলের সঙ্গে পরিচিত।

কোপা আমেরিকা ২০১৯; Image Source: 90Min

কোপা আমেরিকা টুর্নামেন্ট এতটা জনপ্রিয়তা পাওয়ার আরো কিছু কারণ রয়েছে। ফুটবল ইতিহাসের সর্বাধিক জনপ্রিয় এবং সফল দল ব্রাজিল এই উত্তর আমেরিকারই দল। এছাড়াও আরো রয়েছে মেসির আর্জেন্টিনা এবং সুয়ারেজের উরুগুয়ে। মধ্যম পর্যায়ের দলগুলোর মধ্যে চিলি, কলম্বিয়া, ভেনিজুয়েলা তো রয়েছেই।

লিও মেসি; Image Source: sport’sBible

এবারের কোপা আমেরিকা টুর্নামেন্টের পর্দা উঠবে চলতি মাসের ১৪ তারিখ। সর্বমোট ১২টি দলের প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নক আউট পর্ব শেষে জুলাইয়ের ৭ তারিখ ফাইনালের মধ্যদিয়ে পর্দা নামবে এই টুর্নামেন্টের। বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার লিওনেল মেসি মুখিয়ে আছেন এবারের শিরোপাটি নিজের করে নিতে। ক্লাব ক্যারিয়ারে ৩৪টি মেজর ট্রফি জিতলেও এখনো একটি আন্তর্জাতিক শিরোপা জিততে পারেননি তিনি। সেই কারণে গোটা বিশ্বের ফুটবল ভক্তদের নজর থাকবে মেসির দিকে এবং পুরো টুর্নামেন্টে।

আফ্রিকান নেশন্স কাপ

চলতি মাসের ২১ তারিখ শুরু হতে যাচ্ছে আফ্রিকা অঞ্চলের সর্ববৃহৎ ফুটবল প্রতিযোগিতা আফ্রিকান নেশন্স কাপ। এবারের টুর্নামেন্টের আয়োজক দেশ মিশর। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতার পর নিজ দেশে আয়োজিত এই টুর্নামেন্টের শিরোপা জিততে মুখিয়ে আছেন বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা ফুটবলার মোহাম্মদ সালাহ। যার কারণে ফুটবল ভক্তরা বেশ উৎসুক হয়ে অপেক্ষা করছেন টুর্নামেন্টটির জন্য।

আফ্রিকান নেশন্স কাপ; Image Source: SkySports

অন্যসব সময় ১৬টি দল নিয়ে টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হলেও এবার অংশগ্রহণ করবে সর্বমোট ২৪টি দল। সবগুলো দলকে ৬টি গ্রুপে ভাগ করেছে সিএএফ। অন্যদিকে, মোহাম্মাদ সালাহ ছাড়াও গত মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগে যৌথভাবে সর্বোচ্চ গোলাদাতা হওয়া সাদিও মানে এবং অবামেয়াংও নিজ নিজ দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবেন। সেই কারণেই বলা যায় কোপা আমেরিকার সঙ্গে সঙ্গে গুটিকয়েক তারকা মিলে আফ্রিকান নেশন্স কাপকেও মাতিয়ে রাখবেন।

Featured Image: sport’s Illusted

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *