বিশ্বকাপে যে কয়েকটি ম্যাচে নজর থাকবে সবার

৩০শে মে থেকে শুরু হতে যাওয়া ক্রিকেট বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসরে বেশ কয়েকটি ম্যাচকে ঘিরে ক্রিকেট প্রেমীদের মাঝে বাড়তি উত্তেজনা কাজ করবে বলে মনে করছেন ক্রিকেট বিশ্লেষকরা। সেই বিশেষ ম্যাচগুলোতে হার জিতে বদলে যেতে পারে ক্রিকেটের অনেক ইতিহাস ও পরিসংখ্যান। অল্প সময়ে ক্রিকেটে নাম কুড়ানো আফগানদের দিকে এই আসরে বিশেষ নজর থাকবে সব দলের।

বিশ্বকাপ ট্রফি হাতে অস্ট্রেলিয়া ও ভারত দলের অধিনায়ক; Image Source: wisden

ইতিমধ্যে বিশ্বকাপ প্রস্তুতি ম্যাচে পাকিস্তানকে হারিয়ে বিশ্বকাপে নিজেদের শক্ত প্রতিপক্ষ হিসেবে দাবি করছেন তারা। তাছাড়া পাঁচ বারের চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া, গত আসরের রানার্সআপ নিউজিল্যান্ড, স্বাগতিক ইংল্যান্ড, ও শিরোপার দৌড়ে সবার থেকে এগিয়ে থাকা ভারতের ম্যাচ গুলোর দিকের নজর থাকবে সবার।

চলুন জেনে নেওয়া যাক এই আসরে যে ম্যাচ গুলোর দিকে বাড়তি নজর থাকতে পারে কোটি ক্রিকেট পাগল ভক্তদের।

ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া

৯ই জুন, দ্য ওভাল

বর্তমান সময়ে ক্রিকেটে রাজত্ব করা অন্যতম দুই দল হলো ভারত ও অস্ট্রেলিয়া। ক্রিকেটের যেকোনো ফরম্যাটে দুই দলের মধ্যকার ম্যাচ মানেই হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের আবাস। আর সেটা যখন বিশ্বকাপের মতো বড় আসরে হয়ে থাকে তখন বাড়তি উন্মাদনা কাজ করে দুই মহাদেশের ক্রিকেট প্রেমীদের মাঝে। মাঠের গ্যালারি দখলে ব্যস্ত হয়ে পড়ে তারা।

২০০৩ বিশ্বকাপ ফাইলান; Image Source: espncrickinfo

এই বারের বিশ্বকাপে দুই দলের মধ্যে গ্রুপ পর্বে একটি ম্যাচ রয়েছে। ভাবা হচ্ছে এবারের আসরের অন্যতম হাই ভোল্টেজ ম্যাচের মধ্যে এটি একটি। দুই দলের বিশ্বকাপ পরিসংখ্যানের দিকে তাকালে দেখা যায় ভারতের চেয়ে অনেক এগিয়ে আছে পাঁচ বারের বিশ্বকাপ জয়ী অস্ট্রেলিয়া। যেখানে ভারতের শিরোপা সংখ্যা মাত্র দুইটি। তাছাড়া বিশ্বকাপের এই পর্যন্ত দুই দল ১১ বার মুখোমুখি হয়ে। সে পরিসংখ্যানেও ৮-৩ এ এগিয়ে আছে অজিরা।

২০০৩ বিশ্বকাপ ফাইনাল; Image Source: espncrickinfo

তার মধ্যে রয়েছে ২০০৩ বিশ্বকাপের ফাইনালটি। ম্যাচটিতে ভারতকে ১২৫ রানে হারিয়ে তৃতীয় বারের মতো শিরোপা জয়ের স্বাদ গ্রহন করেছিল অজিরা। এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপ আসরে ইংল্যান্ডের মাটিতে দুই দল ৩ বার মুখোমুখি হয়। সেখানেও ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া। তবে, সকল পরিসংখ্যান উপেক্ষা করে যদি বর্তমান ভারত দলের কথা বিবেচনা করা হয় তাহলে অজিদের থেকেও শক্তির দিক দিয়ে অনেকাংশে এগিয়ে বিরাট কোহলির দল।

এই বারের আসরে শিরোপা জয়ের দৌড়ে সবার আগে ভারতকেই এগিয়ে রাখছেন ক্রিকেট বিশ্লেষকরা। যদিও সে দৌড়ে কিছুটা পিছিয়ে রয়েছে স্বাগতিক চ্যাম্পিয়নরা।

ভারত বনাম পাকিস্তান

১৬ই জুন, ম্যানচেস্টার

এশিয়া মহাদেশের ক্রিকেটের দুই পরাশক্তির দেশ বলা হয় ভারত ও পাকিস্তানকে। দুই দেশের মধ্যে রাজনৈতিক সম্পর্কের অস্থিতিশীলতার কারণে ক্রিকেটেও এর প্রভাব পড়েছে। ক্রিকেটের দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দল বলা হয় তাদের। আসন্ন বিশ্বকাপে ১৬ই জুন ম্যানচেস্টারে গ্রুপ পর্বে দুই দলের মধ্যকার একটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। এখন পর্যন্ত ভারত বিশ্বকাপ জয়ের সংখ্যা দুইটি এবং পাকিস্তানের একটি।

১৯৯২ বিশ্বকাপ ফাইনাল; Image Source: espncrickinfo

এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপে দুই দল ৬ বার মুখোমুখি হয়েছে। যেখানে ৬-০তে এগিয়ে আছে ভারত। ১৯৯২ বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল পাকিস্তান। ওই আসরেও গ্রুপ পর্বে দুই দল মুখোমুখি হয়। সেখানেও ভারতের কাছে হারে পাকিস্তান। সর্বশেষ ২০১৫ বিশ্বকাপেও দুই দল মুখোমুখি হয়, এতেও হার এড়াতে পারেনি পাকিস্তান। বিরাট কোহলির দুর্দান্ত শতকে ৭৬ রানে জয় পায় ভারত।

২০১৭ চ্যাম্পিয়নস ট্রফি; Image Source: dnaindia

২০১৭ সালে চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে গ্রুপ পর্বে এবং ফাইনালে মুখোমুখি হয় দুই দল। সেখানে সকল পরিসংখ্যান উলট-পালট করে দেয় পাকিস্তান। গ্রুপ পর্বের ভারতের কাছে হারলেও ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি নিজেদের করে নেয় পাকিস্তান। এই জয়ে বিশ্বকাপের ম্যাচটিকে ঘিরে দুই দেশের দর্শকদের মাঝে বাড়তি উত্তেজনা কাজ করবে বলে মনে করছেন ক্রিকেট বিশ্লেষকরা।

ইংল্যান্ড বনাম অস্ট্রেলিয়া

২৫শে জুন, লর্ডস

ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম দুর্ভাগা দল হিসেবে দেখা হয় ইংল্যান্ডকে। কারন, এখন পর্যন্ত তিন বার বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলতে পারলেও একবারও শিরোপা জিততে পারেনি তারা। আর ক্রিকেটে তাদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দল অস্ট্রেলিয়া শিরোপা জয়ের দৌড়ে অনেকটাই এগিয়ে আছে। পাঁচ বার বিশ্বকাপ জেতার রেকর্ড রয়েছে তাদের।

১৯৮৭ বিশ্বকাপ ফাইনাল; Image Source: icc

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ইংল্যান্ডকে ১৯৮৭ বিশ্বকাপের ফাইনালে ৭ রানে হারিয়ে প্রথম বারের মতো শিরোপা জেতে অজিরা। বিশ্বকাপের প্রথম আসর থেকে এখন পর্যন্ত দুই দল ৭ বার মুখোমুখি হয়। এতে ৫-২ ব্যবধানে এগিয়ে আছে অজিরা। সর্বশেষ ২০১৫ বিশ্বকাপেও গ্রুপ পর্বে তাদের মধ্যে একটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে ১১১ রানের বিশাল ব্যবধানে হারে অজিরা।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ জয় উদযাপন; Image Source: dnaindia

২০১৭ সালে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে গ্রুপ পর্বে দুই দল মুখোমুখি হয়, সেখানেও অবশ্য ডি/এল মেথডে ৪০ রানে জয় লাভ করে ইংলিশরা এবং সদ্য হয়ে যাওয়া দুই দলের মধ্যকার ৫ ম্যাচের ওডিআই সিরিজেও ৪-১ ব্যবধানে জয় লাভ করে ইংল্যান্ড। সাম্প্রতিক দুই দলের পরিসংখ্যান থেকে বোঝা যায় অজিদের থেকে শক্তিমত্তায় অনেকটাই এগিয়ে আছে ইংলিশরা। তাই এবারের বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়া থেকেও ইংল্যান্ডকেই এগিয়ে রাখছেন ক্রিকেট বিশ্লেষকরা।

অস্ট্রেলিয়া বনাম নিউজিল্যান্ড

২৯ জুন, লর্ডস

২০১৫ বিশ্বকাপের ফাইনালে মুখোমুখি হওয়া দুই দলের ম্যাচকে ঘিরে এই আসরেও থাকবে বাড়তি উত্তেজনা। কারণ গত আসরের ফাইনালে অজিদের কাছে হেরে প্রথম শিরোপা জয়ের স্বপ্ন পূরণ হয়নি কিউইদের। এরই প্রতিশোধ নিতে মরিয়া হয়ে আছে তারা। বিশ্বকাপের প্রথম আসর থেকে দুই দল নিয়মিত অংশগ্রহণ করে আসলেও এখনও বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন পূরণ হয়নি ব্ল্যাক ক্যাপসদের। আর পক্ষান্তরে অজিদের বিশ্বকাপ জয়ের সংখ্যা ৫টি।

২০১৫ বিশ্বকাপ; Image Source: skysports

বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত দুই দল ১০ বার মুখোমুখি হয়। যেখানে ৬-৪ ব্যবধানে এগিয়ে আছে অজিরা। সর্বশেষ ২০১৫ বিশ্বকাপে দুই দল গ্রুপ পর্বে ও ফাইনালে মুখোমুখি হয়। গ্রুপ পর্বের ম্যাচে নিউজিল্যান্ড জয় লাভ করলেও ফাইনালে তারা হেরে যায়। ২০১৫ বিশ্বকাপের পর থেকে ওডিআইতে বেশ উন্নতি হয়েছে কিউইদের। র‍্যাংকিংয়েও তারা অজিদের পিছনে ফেলেছে। বর্তমানে আইসিসি ওডিআই র‍্যাংকিংয়ে চার নম্বরে রয়েছে নিউজিল্যান্ড ও পাঁচ নম্বরে অস্ট্রেলিয়া।

আফগানিস্তান বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ

৪ই জুলাই, হেডিংলি

আফগানিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ দুই দলই বিশ্বকাপে জায়গা করে নিয়েছে কোয়ালিফাইং রাউন্ড খেলে। ১৯৭৫ ও ১৯৭৯ বিশ্বকাপ জয়ী উইন্ডিজদের ক্রিকেটে বর্তমান অবস্থা এতটাই শোচনীয় যে আফগানিস্তানের কাছে কোয়ালিফাইং রাউন্ডে দুই বার হেরেছে। গ্রুপ পর্বের ম্যাচে হার ছাড়াও ওই রাউন্ডের ফাইনালে আফগানদের কাছে হারে তারা।

বিশ্বকাপ কোয়ালিফাইং রাউন্ড ফাইনাল; Image Source: cricketworldcup

কোয়ালিফাইং রাউন্ডে রানার্সআপ হওয়ার সুবাদে বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করা সুযোগ পায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বিশ্বকাপের মূল আসরে দুই দল আবারও মুখোমুখি হবে। সেখানে আফগানদের বিপক্ষে জয়ের আশা নিয়েই মাঠে নামবে উইন্ডিজরা।

Featured Image: drcricket7.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *